স্টার্টাপ কোম্পানিতে জব করার সুবিধা অসুবিধাগুলো কি কি?


(Mitul Minhaz) #1

অনেকে স্টার্টাপ কোম্পানিতে জবের বদনাম করেন। তবে কদিন আগে এক ভাইয়ের কাছে সুনাম শুনে অবাক হলাম।
জানতে চাই স্টার্টাপে জব করার কোন সুবিধা আছে কিনা।


(Sayem Hossain) #2

আসলে স্টার্টাপ কোম্পানিকে জব করার সুবিধা অসুবিধা কি এটা বলাটা বেশ কষ্টকর।
উবারও একটা স্টার্টাপ, আবার বাংলাদেশের কোনায় কোনায় গজিয়ে ওঠা স্টার্টাপ কোম্পানিগুলোও স্টার্টাপ।

যতদূর বুঝতে পারছি আপনি বাংলাদেশের মোটামুটি ভাল মানের প্রমিজিং স্টার্টাপ কোম্পানিগুলোর কথা চিন্তা করে বলেছেন।

আমার বেশ কিছু স্টার্টাপ কোম্পানিতে কাজ করার সুযোগ হয়েছে। বর্তমানে যে কোম্পানিতে আছি সেটাও একটা স্টার্টাপ কোম্পানি। কাজেই কিছু আমার পারস্পেক্টিভে কিছু সুবিধা অসুবিধা তুলে ধরতে পারি। তবে সবার ক্ষেত্রে সেটা নাও খাটতে পারে।

সুবিধাঃ

  • চ্যালেঞ্জিং কাজঃ আর কিছু হোক আর না হোক, কাজগুলো খুবই চ্যালেঞ্জিং হয়। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন আইডিয়াকে বাস্তব রূপ দেয়ার মধ্যে যেমন আলাদা একটা মজা আছে, তেমনি বেশ চ্যালেঞ্জিংও। কাজেই একঘেয়েমি লাগার সম্ভাবনা খুবই কম।

  • ইন্ট্রেস্টিং কাজঃ যেমনটা বলছিলাম। ইন্ট্রেস্টিং আইডিয়াকে বাস্তবে রূপ দিতে যে কাজগুলো করা লাগবে, সেগুলো বেশ ইন্ট্রেস্টিং। আপনি জানেন না আপনি কাজটা সময়ের মধ্যে শেষ করতের পারবেন কিনা, তারপরেও চ্যালেঞ্জটা নিতে হচ্ছে। নতুন কিছু করতে হচ্ছে যা কেউ করেনি আগে।

  • মেকিং ওয়ার্ল্ড এ বেটার প্লেসঃ সাধারণটা মানুষের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের নতুন কোন আইডিয়া নিয়েই স্টার্টাপ কোম্পানিগুলোর জন্ম হয়। কাজেই পরোক্ষভাবে সেখানে ইফোর্ট দেয়া মানে আপনি মানুষের জন্য ভালো কিছু করার সুযোগ পাচ্ছেন।

  • ভালো স্যালারীঃ সাধারণত স্টার্টাপ কোম্পানিগুলো তাদের এমপ্লয়িদের ভালো স্যালারি অফার করে থাকে। কারণ, কেন নয়? ফান্ডিং থাকলে ভালো এমপ্লয়ি ধরে রাখতে ভালো স্যালারি দিতে দ্বিধাবোধ করে না। কারণ তাদের অসাধারণ আইডিয়াগুলো ভালোভাবে ইমপ্লিমেন্ট করার কোয়ালিটি যাদের আছে, তাদের মাধ্যমেই একটা রোবাস্ট প্রোডাক্ট বাজারে অ্যাসবে। সে প্রোডাক্টগুলোর কোয়ালিটি ভালো না হলে কোম্পানির স্বপ্নই মাঠে মারা যাবে।

অসুবিধাঃ

  • আনস্ট্যাবল জবঃ কোম্পানির ভবিষ্যৎ যেহেতু এখনো জানা নেই কাজেই আপনার চাকরির ভবিষ্যৎ ও নিশ্চিতভাবে বলা যায় না। যেকোন মুহুর্তে চাকরি হারানোর জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। অলরেডি স্ট্যাবলিশড বড় কোম্পানিগুলোতে বিভিন্ন ইনস্যুরেন্স আছে, কোম্পানি পলিসি আছে। কাজেই জব চলে গেলে আরেকটা জব পাওয়ার জন্য পর্যাপ্ত সময় পাবেন, অনেকটা সেফ। কিন্তু এখানে একটু রিস্কি।

  • কম স্যালারিঃ উপরেই আমি একটা পয়েন্টে স্টার্টাপ কোম্পানিগুলো ভাল স্যালারি দেয় বলেছি। কিন্তু সব স্টার্টাপ কোম্পানিগুলো এক না। বাংলাদেশের কোনায় কোনায় গজিয়ে ওঠা কিছু স্টার্টাপের কথাই চিন্তা করুন। তারা চায়, হাজার দশেক টাকায় উবার বানিয়েই বিজনেস শুরু করে দেবে।

  • কাজেই প্রেশারঃ স্টার্টাপে কাজের প্রেশার উঠানামা করে। কখনো কখনো বেশ ফ্লেক্সিবল, আবার কখনো প্রচণ্ড প্রেশার। এটা হওয়াই স্বাভাবিক। কারণ কোম্পানিগুলোর কিছু টার্গেট থাকে, টাইমলাইন থাকে। ওসব মেনে নিয়েই কাজ করতে হবে।

আপাতত এগুলোই মাথায় আসছে। নতুন কিছু মাথায় আসলে এই পোস্ট আপডেট করব।

তবে ভালো খারাপ যাই হোক, এই স্টার্টাপ কোম্পানিগুলোকেই তাদের এমপ্লয়িরা গুগল, আমাজনের মতো বড় কোম্পানিতে রূপ দেয়। কিভাবে দেয় জানেন? নিজেদের যোগ্যতা দিয়ে এবং কোম্পানির প্রতি লয়্যাল থেকে।


(Jahid) #3

Great information vai.